যে ১০ টি কারণে আপনার মেডিটেশন করা উচিত

Reviews

Verified

বলা হয়ে থাকে যে, নিজের ভেতর ও বাহির সম্পর্কে জানার অন্যতম উপাইয় হল ধ্যান করা। ধ্যান করা কেবলমাত্র একটি নির্দিষ্ট নিয়মে কোথাও চোখ বুঝে বসে থাকাকে বোঝায় না। আত্নিক সংযোগের জন্য ধ্যান করা আবশ্যিক।

দীর্ঘ সময় ব্যাপী যে আপনাকে সব ছেড়ে ধ্যানে বসে থাকতে হবে এমন কোনো শর্ত নেই। তবে প্রতি দিন অল্প সময়ের জন্য হলেও ধ্যানে বসা উচিত। কারণঃ

. আরো মনোযোগী ও সচেতন হওয়ার জন্য

মনোযোগ বাড়ানো মানে হল আপনি আপনার চিন্তাভাবনা ও ক্রিয়া কলাপ নিয়ে কতটা সচেতন তার উপর নিজস্ব নজরদারি চালানো।

এখন ধ্যান করলে যে উপকারটি আপনার হবে তা হল আপনি এর মাধ্যমে আপনার চিন্তাভাবনার প্রতিফলনগুলোকে দেখতে পাবেন। এতে করে আপনি নিজের কাজের মূল্যায়ন নিজেই করতে পারবেন, যা আপনার উন্নতির জন্য অনেক সাহায্যকর দিক হবে।

. অপ্রয়োজনীয় উদ্বেগ কমানো

অতিরিক্ত উদ্বেগ যে আমাদের শরীরের জন্যও হানিকর তা আমরা জানি। ধীরে ধীরে কিছুটা দীর্ঘ শ্বাস প্রশ্বাস চালনের মাধ্যমে আপনি এক সময় উপলদ্ধি করতে পারবেন যে আপনার উদ্বেগ আস্তে আস্তে বাষ্পায়ীত হয়ে যাচ্ছে।

. আবেগের উপর নিয়ন্ত্রণ

আমরা মোটামোটি সকলেই চাই আমাদের আবেগগুলোকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে। আপনি যখন খুশী মুডে থাকেন তখন তা আপনি প্রকাশ করতে পারেন খোলামেলা ভাবে। কিন্তু আপনি যখন রাগান্বিত হন তা অবস্থা বুঝে আপনাকে প্রকাশ করতে হয়। আর সে জন্য চাই আবেগের উপর নিয়ন্ত্রণ।

ধ্যান করার ফলে আপনি আপনার মনের ক্রিয়া কলাপ বিচার বিশ্লেষণ করতে পারবেন। এতে করে আপনি সিধান্ত নিতে পারবেন কোন মূহুর্তে আপনাকে কি করতে হবে। মনের উপর ভর করে চলা নিশ্চয় খুব বেশী উপকারী দিক নয়।

. অপেক্ষাকৃত ভালো সিধান্ত গ্রহণ

ধ্যানের কারণে যেহেতু আপনি আপনার আবেগ, চিন্তা ভাবনা প্রভৃতির উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারে তাই সহজেই আপনি প্রতিকূল পরিবেশে কেবল উল্টাপাল্টা ব্যবহার না করে পুরো বিষয়টা নিয়ে ভাববেন। এর পরবর্তীতে যে কোনো কাজ করার পূর্বে ১ বার হলেও ভেবে কাজে নামবেন।

. জীবনকে একটি ছন্দময় গতিতে পরিচালিত করা

জীবন কোনো পূর্ণ বেগে দৌড়ানোর প্রক্রিয়া নয় বরং তা হচ্ছে সহ্য শক্তির পরীক্ষা। আপনি যদি খুব তেজ গতিতে চলেন জীবনে তো একটা সময় পরে ধীরে চলার প্রয়োজনীয়তা উপলদ্ধি করবেন। আগে মনকে ধীরে পরিচালিত করান পরে বাকি সব কিছু আপনার উপযোগী হয়ে যাবে।

. নতুন গুণার্জন

ধ্যান করতে পারাও কিন্তু একটি দক্ষতা। ধ্যান করতে হলে আপনার পূর্ণ মনযোগের ও চর্চার প্রয়োজন পরে। আপনার মনকে উন্নত করে তুলতে পারার মাধ্যম হচ্ছে এই ধ্যান, যা কিনা আপনার বিশেষ দক্ষতাকেই প্রতিফলিত করে।

. নিজেকে আরো সুখী ভাবা

কে না নিজেকে সুখী হিসেবে কল্পনা করতে চায়। ধ্যান করলে আপনি এই পৃথিবীর সাথে এক আত্নিক যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবেন। ধ্যান আপনাকে তৃপ্ত থাকার অনুভূতি প্রদান করবে।

. বিনামূল্যে ধ্যান

বিনামূল্যে নিজ বাসায় ধ্যান করে এই উপকারগুলো লাভ করতে ক্ষতি কি?

. করতে পারেন যে কোনো স্থানে

শান্ত যে কোনো পরিবেশেই আপনি বসে পরতে পারেন আত্নিক যোগাযোগের উদ্দেশ্যে।

১০. ক্রিয়াশীলতা

ধ্যান করার উপকারিতা একমাত্র তা করার পরেই পাবেন।

ধ্যান করাকে কোনো নির্দিষ্ট ধর্মের ক্রিয়াকলাপ হিসেবে না বিবেচনা করে বরং এটাকে আমাদের জীবনের একটি পদ্ধতি হিসেবে বিবেচনা করা উচিত।